২১শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৯ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ৫ই জমাদিউস-সানি, ১৪৩৯ হিজরী

এই শেখ হাসিনাকেই মুক্তির জন্য দাবী জানিয়েছিলেন খালেদা জিয়া

ফেব্রুয়ারি ১২, ২০১৮, সময় ৭:৩৩ পূর্বাহ্ণ

২০০৭ সালের ১৬ জুলাই ভোর রাতে একটি চাঁদাবাজির মামলায় গ্রেফতার করা হয়েছিল শেখ হাসিনাকে। প্রায় ৩ কোটি টাকার একটি চাঁদাবাজির মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। এই গ্রেফতারের একদিন পরই তার মুক্তি চেয়ে গণমাধ্যমে বিবৃতি দেন খালেদা জিয়া। সেই বিবৃতি গণমাধ্যমে প্রকাশও হয়।

সে সময় সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিশিষ্ট নাগরিক উল্লেখ করে শেখ হাসিনাকে মুক্তি দিয়ে অভিযোগের আইনি প্রক্রিয়ার সমাধান করার আহ্বান জানিয়েছিলেন খালেদা জিয়া। খালেদা তাতে বলেন, ‘শেখ হাসিনাকে অবিলম্বে মুক্তি দেয়া উচিত। শেখ হাসিনাকে মুক্ত রেখে আইন পরিচালনা করা হলে পারস্পরিক অবিশ্বাস, সন্দেহ, সামাজিক উত্তেজনা এবং রাজনৈতিক আশঙ্কা কমে আসবে।

শেখ হাসিনাকে যেভাবে গ্রেফতার করে আদালতে নিয়ে যাওয়া হয়েছে তাতে খালেদা জিয়া দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, ‘শেখ হাসিনা একজন সাবেক প্রধানমন্ত্রী, জাতীয় নেতার কন্যা এবং দেশের সম্মানিত নাগরিক। ‘ তাকে গ্রেফতার করায় বিবেকমান নাগরিকেরা আহত হয়েছেন। এর ফলে দেশে বিদেশেও সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ হয়েছে বলে উল্লেখ করেন খালেদা জিয়া।

শেখ হাসিনাকে গ্রেফতারের আড়াই মাস পর ২০০৭ সালের ৩ সেপ্টেম্বর খালেদা জিয়াকে গ্রেফতার করা হয়েছিল অন্য আরেকটি মামলায়। খালেদা জিয়া ও শেখ হাসিনা দুই নেত্রীর বিরুদ্ধেই বিভিন্ন অভিযোগে একাধিক মামলা দায়ের হয়। সেই সব মামলার ভেতরই একটি মামলা ছিল জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলা।

আর এই জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় প্রায় সারে ১০ বছর পর এবার খালেদা জিয়াকেই পাঁচ বছরের কারাদন্ড পেতে হল। আর এখন সরকার প্রধান সেই শেখ হাসিনা যাকে মুক্তির জন্য খালেদা জিয়া গনমাধ্যমে বিবৃতি দিয়েছিলেন।